Header Border

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২রা ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ ইং | ১৯শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ (শীতকাল) ১৭.৯৬°সে

পরীমনির বিরুদ্ধে কমিউনিটি ক্লাবে ভাঙচুরের অভিযোগ

গুলশান-১ নম্বর অল কমিউনিটি ক্লাবে নায়িকা পরীমণির সঙ্গে ক্লাব কর্তৃপক্ষের তর্কাতর্কি ও বাকবিত-ার ঘটনা ঘটেছে। এবিষয়ে ক্লাব কর্তৃপক্ষ থেকে ফোন দেওয়া হয় ৯৯৯ নম্বরে। এরপর ঘটনাস্থলে আসে পুলিশ গুলশান থানা পুলিশ।

বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন গুলশান বিভাগের উপকমিশনার (ডিসি) সুদীপ কুমার চক্রবর্তী।

তিনি বলেন, পরীমনি ওই ক্লাবের সদস্য নন। ঘটনার রাতে তিনি ক্লাবে অনুপ্রবেশ করেন। তারপর ক্লাবের সদস্যদের সঙ্গে তার বাকবিত-া ও তর্কবিতর্ক হয়। তিনি কয়েকটি গ্লাস এবং স্ট্রে ভাঙচুর করেছেন বলে সময় টেলিভিশনকে দেওয়া ১৪ মিনিট ২ সেকেন্ডের এক সাক্ষাতকারে ক্লাব কর্তপক্ষ অভিযোগ করেছেন। ওই সাক্ষাৎকার থেকে জানা গেছে, ওইদিনের ঘটনায় পরে ঘটনাস্থল থেকে একজন জরুরি সেবা ৯৯৯ এ ফোন দেয়। ফোন পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় পুলিশ।

তিনি আরও বলেন, ৯৯৯ থেকে গুলশান থানায় ফোন করলে সেখানে পুলিশ পাঠানো হয়। পুলিশ গিয়ে তাদের মধ্যে বাকবিত-া দেখতে পায়। এরপর পুলিশ থানায় ফিরে এসে সাধারণ ডায়েরি (জিডি) আকারে গোটা বিষয়টি থানায় অবগত করে।

এ ব্যাপারে গুলশান থানা জানায়, সাধারণত ৯৯৯ থেকে কোনো ডাক পেলে সেই ঘটনাস্থলে গিয়ে পুলিশ কী পেল না পেল ইত্যাদি অবগত করতে হয়। তার অংশ হিসেবেই সেদিনের ক্লাবের ঘটনাটি পুলিশ জিডি আকারে লিখে রাখে।

গুলশান থানা-পুলিশ জানিয়েছে, ঘটনাটি ঘটেছে ৭ জুন গভীর রাতে। তবে এ ঘটনায় আজ বুধবার সন্ধ্যা ৮টা পর্যন্ত থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) বা মামলা হয়নি। তবে পুলিশ নতুন করে ওই ঘটনা তদন্তে ক্লাব পরিদর্শনে যাবে।

যদিও ঘটনার এতোদিন পর এমন অভিযোগকে ‌`ফালতু’ আখ্যা দিয়েছেন বিতর্কিত এই নায়িকা। তিনি পাল্টা প্রশ্ন করে বলেন, এতোদিন পর কেন অভিযোগ?

এদিকে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক ক্লাব সদস্য জানিয়েছেন, পরীমনি সেখানে গিয়েছিলেন আমাদের এক সদসে্যর সঙ্গে। যেহেতু সিনকি্রেয়ট হয়ে গেছে তাই ওই সদস্যকে শোকজ নোটিশ পাঠিয়েছে ক্লাব কর্তৃপক্ষ।

প্রসঙ্গত, ৯ জুন মধ্যরাতে সাভারে অবস্থিত ঢাকা বোট ক্লাবে চিত্রনায়িকা পরীমনিকে ধর্ষণচেষ্টা ও হত্যাচেষ্টা করা হয় বলে তিনি অভিযোগ করেন। ঘটনার চার দিন পর রোববার রাত ৮টার দিকে ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দিয়ে এবং রাত ১১টার দিকে সংবাদ সম্মেলন করে এ ঘটনা প্রকাশ করেন নায়িকা পরীমনি।

সোমবার সকালে ব্যবসায়ী নাসির উদ্দিন মাহমুদসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে সাভার থানায় মামলা করেন তিনি। ওই দিনই প্রধান আসামি নাসির উদ্দিন মাহমুদ ও অমিসহ পাঁচজনকে গ্রেফতার করে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ। তাদের কাছ থেকে মাদক ও ইয়াবা জব্দ করা হয়।

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন

জমকালো আয়োজনে ২য় ‘ময়ূরপঙ্খী স্টার অ্যাওয়ার্ড’ অনুষ্ঠিত
ভালোবাসা দিবসে আসছে ‘কথা দিলাম’
৩ ফেব্রুয়ারি প্রেক্ষাগৃহে মুন্না-নিপুণের ‘ভাগ্য’
ভেঙে গেলো পরীমনি ও রাজের সংসার
আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম কিনলেন মাহিয়া মাহি
অধরা খানের নতুন সিনেমা দ্য ফ্রড

আরও খবর